জাওয়ান মুভি ট্রেইলার এক্সপ্লেইন| জাওয়ান মুভির বেস্ট ভিডিও ট্রেইলার এক্সপ্লেইন| jawan movie hit trailer explain | jawan movie preview explain |shahrukh khan latest movie jawan trailer explain

 শাহরুখ খানের নতুন মুভি জাওয়ানের ট্রেইলার রীতিমতো অনলাইনে ভাইরাল হয়ে গেছে। কিন্তু এই ছবিটাতে কি এমন আছে যার জন্য এইটা এত বেশি হাইপ তুলেছে জনগণের মাঝে ? চার বছর পরে শাহরুখ খানের কাম বেক সবাইকে অবাক করে দিয়েছেন  কিন্তু কি আছে এই মুভিতে আসুন জেনে নেই।


জাওয়ান মুভির ট্রেইলারেই কাপিয়ে দিলো বিশ্ব


২ মিনিট ১২ সেকেন্ডের ট্রেইলারে শাহরুখ খানকে অনেক ধরনের ঝলকেই দেখা গিয়েছে । প্রায় চার বছর পর শাহরুখ খানের নতুন মুভি চলে আসলো যা ট্রেইলার দেখি সবার মাথায় হাত। সবাই হয়তো ভেবেছিল শাহরুখ খান আর এই বয়সে তেমন কোন ছবি করতে পারবে না কিন্তু তিনি যে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিবেন নতুন ছবির শুধুমাত্র প্রিভিউ দিয়ে তা হয়তো কেউ কল্পনাও করতে পারেনি। টেইলার হঠাৎ করেই চলে আসে কিন্তু শাহরুখ খানের নতুন মুভি জাওয়ানের ট্রেইলার কিন্তু আসেনি।  তবে এর আগে জাস্ট একটা প্রিভিউ দিয়ে দিয়েছে। কেউ হয়তো বুঝতেই পারেনি শাহরুখ খানের এই ছোট্ট একটা প্রিভিউ ই পুরা নেট দুনিয়া কাঁপিয়ে দিবে। চার বছর পর নতুন একটা ছবির ট্রেইলার এত বেশি পরিমাণে হিট হয়ে যাবে তা হয়তোবা কেউ কল্পনাও করতে পারেনি। 



৫৭ বছর বয়সে জাওয়ানের মতো মুভি করা কোন অভিনেতার পক্ষেই সম্ভব ছিল না ।নতুন মুভি জওয়ান ইজ ব্যাক এ শাহরুখ খানের অনেক রুপ দেখা গেছে ।এবং এই ছবি ট্রেইলার এত বেশি ইন্টারেস্টিং হচ্ছে বলার বাহিরে। ডিরেক্টর শুধুমাত্র ট্রেইলার দিয়ে দেখাতে চেয়েছিলেন যে এই ছবিটা কতটা ইন্টারেস্টিং হতে যাচ্ছে ।আর এই মুভিটা কিন্তু অনেক দেশেই অনেক ভাষায় রিলিজ করা হবে ।এবং মুভিতে অনেক নায়িকার সাথে সাথে কিন্তু আমরা দীপিকা পাডুকন কেও দেখেতে পেয়েছি যার কিনা শাহরুখ খানের সাথে অনেক বেশি মানায় ।পাঠান মুভিটাও কিন্তু দীপিকা পাডুকোন এবং শাহরুখ খানের দেখা গিয়েছে ।



পাঠান মুভি অনেক বেশি হিট খেয়েছে তবে তারপর কিন্তু শাহরুখ খান নতুন মুভি করেনি। এবং পাঠান মুভি যে কি পরিমাণ ইনকাম করেছে তা হয়তো আমরা সবাই কমবেশি জানি। প্রত্যেকটা দেশেই পাঠান মুভি রিলিজ করা হয়েছে এবং জনগণ এই পাঠান মুভি অনেক পছন্দ করেছেন দীপিকা এবং শাহরুখ খানের জুড়ির তো কোন কথাই নেই ।তাদের দুইজনের সংমিশ্রণে এই পাঠান মুভি হয়ে গিয়েছিল অনেক বেশি ইন্টারেস্টিং। কিন্তু শাহরুখ খান বয়সের  শেষের দিকে এসে এত বেশি পরিমাণ ইন্টারেস্টিং ছবি করতে পারবে তা হয়তো কারোর জানাই ছিল না। ৫৭ বছর বয়সেও কয়েকটি লুকে দেখা গেছে শাহরুখ খানকে ।মাত্র ২ মিনিটে ট্রেইলারি বুঝিয়ে দিল যে শাহরুখ খান কি করতে পারে ।


শাহরুখ খানকে বলা হয় কিং আসলে সত্যি বলতে কিং ইয়েস অলওয়েজ এ কিং। বয়সের শেষের দিকে এসো যে পরিমাণ ছবি তিনি করছেন এবং তা জনগণের মাঝে এত বেশি সাড়া ফেলছে যা অন্যান্য অভিনেতারাও করতে পারছেন না। আর দিনে দিনে তার অভিনয় যেমন ইন্টারেস্টিং আর সুন্দর হচ্ছে তেমন দর্শকদের আরো বেশি নজর কাড়ছে।একের পর এক সুন্দর মুভি দেখতেই পারছি আমরা তার। শুধুমাত্র মুভির ছোট্ট একটা ট্রেইলার দিয়েই তিনি পুরো নেট দুনিয়া কাঁপিয়ে দিয়েছেন। 


শাহরুখ খান কে ভিলেন লোকে হয়তো খুব কম মানুষের দেখেছেন। আর তার নতুন এই মুভি জাওয়ানে আমরা তাকে আবারও ভিলেন লুকে দেখতে পাবো। আর শাহরুখ খানের হিরো এন্ট্রি যতটা সুন্দর তার থেকেও কিন্তু ভিলেনের এন্টি টা আরো বেশি সুন্দর। আর জাওয়ান মুভিতে  যখন আমরা পাব হিরো এবং ভিলেন দুইটারই কম্বিনেশন তখন কি কি পরিমান সুন্দর হবে সেই মুভিটা তা হয়তো কল্পনাও করার বাহিরে।এই বয়সে এসেও এই ছবি উপহার দিবেন আমাদেরকে শাহরুখ খান তা হয়তো ভাবাই যায়নি। শুধুমাত্র ইন্ডিয়াতেই না সম্প্রতি আশেপাশের সবগুলো দেশেই কিন্তু তার এই ট্রেইলার অনেক বেশি সাড়া ফেলেছে। জান মুভিতে রয়েছে যেমন একশন, তেমন রোমান্টিক, তেমনই রয়েছে শাহরুখ খানের কিছু দুষ্টু দুষ্টু কাণ্ডকারখানা। 


আসুন মুভি সম্পর্কে কিছু জেনে নেই যে কি আছে এই জাওয়ান মুভিতে। জান মুভিতে আমরা শাহরুখ খানকে যেমন দেখতে পারবো হিরোর এন্ট্রি তে তেমনি আমরা দেখতে পারব ভিলেনের এন্ট্রিতেও সাথে সাথে আমরা কিন্তু শাহরুখ খানকে রোমান্টিক কিছু অভিনয় করতেও দেখতে পাবো। সুতরাং বলাই যাচ্ছে এটা শাহরুখ খানের বিভিন্ন অ্যাটিটিউড দ্বারা মিশ্রিত ।ডিরেক্টর প্রথমে এটা ট্রেইলার দিয়ে দেখতে একটু চেয়েছিলেন যে এই ছবির সারা কতটুকু পাওয়া যায়। যখন তারা দেখল যে এর অনেক বেশি সারা পেয়েছে  তখন তারা এটা নিয়ে ভাবল যে তারা এই ছবিটা বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ভাষায় পরিচালনা করবে। কারণ শুধু ইন্ডিয়াতেই না অন্যান্য দেশের মানুষও এর ট্রেইলার দেখে অবাক। 


 মুভিতে শাহরুখ খানকে যেহেতু হিরো এবং ভিলেন দুইটা লুকে দেখা গিয়েছে তো ধারণা করা হচ্ছে যে এইখানে বাবা এবং ছেলের দুইটা পার্ট দেখা যাবে। ধারণা করা হচ্ছে যে শাহরুখ খান নিজেই ভিলেন এবং নিজেই হিরো হবেন দুইটা পার্টে। প্রথমটাতে শাহরুখ খান বাবা হিসেবে এবং হিরো হিসেবে থাকবেন। যেখানে তাকে একটু বৃদ্ধ লুকে দেখা যাবে। এবং পরবর্তীতে তার ছেলেকে একটু ইয়াং লুকে দেখানো হবে। এবং হয়তোবা বোঝা হচ্ছে যে শাহরুখ খানের ছেলেটাই ভিলেন লুকিয়ে থাকবে। এবং সে বাবার প্রতিশোধ নিতেই আসবে। একদিকে শাহরুখ খান নিজেই হিরো বাবা হিসেবে থাকবে অপরদিকে শাহরুখ খান নিজেই ভিলেন ছেলে হিসেবে থাকবে। এতে বুঝা যাচ্ছে খুবই ইন্টারেস্টিং একটা কেমিস্ট্রি হবে। 


যেহেতু ছবি সম্পর্কে এখনো সম্পূর্ণ জানা যায়নি শুধুমাত্র ট্রেইলারই দেখানো হয়েছে তাই ধারণা সম্পূর্ণ সঠিক নাও হতে পারে। তাও বলা যায় যে বাবার প্রতিশোধ নিতেই ছেলে ফেরত আসবেন। তবে তার বাধা কিন্তু হবে তার বাবাই। সুতরাং এখানে বলা হচ্ছে যে শাহরুখ খান নিজেই ভিলেনের লুক নিয়ে আসবেন এবং শাহরুখ খানের বাবা সেই হিরোর মত হয়ে ভিলেনকে আটকাবেন। সুতরাং এখানে বুঝা যায় যে নিজের সাথেই নিজের একটা যুদ্ধ হবে। যেখানেই ইয়াং শাহরুখ খান থাকবে হচ্ছে ভিলেন লুকে এবং ওল্ড বা বয়স্ক শাহরুখ খান থাকবে হচ্ছে হিরো লুকে। তো দুইজনে দুইজনকে সেই ভাবে টক্কর দিবে। সুতরাং বলাই যাচ্ছে হাড্ডা হাড্ডি লড়াই। 


পাঠান যেমন এ পর্যন্ত ইনকাম করা সবচেয়ে বেস্ট মুভি ছিল ধারনা করা হচ্ছে যে জাওয়ান এর ডাবলের ডাবল ইনকাম করবে। এক এক লুকে একেকবার দেখা যায় শাহরুখ খানকে। ভিলেনের লুকগুলোই তার সবচেয়ে বেশি ইন্টারেস্টিং লাগে। তাকে ভিলেনের লুকেই সবচেয়ে বেশি মানিয়েছে। সুতরাং বলাই যাচ্ছে যে কিং খান আবারও তার নতুন মুভি জাওয়ান দিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিবে। এবং এইটাও ধারণা করা হচ্ছে যে এই মুভি সবচেয়ে বেশি ইনকাম করবে মুভি ইন্ডাস্ট্রিতে। আপাতত হলিউডের সবাই তো এখন এই মুভি নিয়েই কথা বলছে। অপেক্ষায় আছে কবে রিলিজ করবে এই জাওয়ান ছবি। শুধু মাত্র হলিউডের ইনা আমাদের বাংলাদেশের অনেকেই কিন্তু এই মুভি দেখার জন্য এক অনেক এক্সাইটেড। 


শাহরুখ খান সব সময় তার ছবিতে কিছু না কিছু নতুনত্ব এনে থাকে। এবং তার ছবি একটু আন কমনই হয়। এবং জাওনেরর ট্রেইলার দেখে বোঝাই যাচ্ছে যে এই ছবিটা কোন অংশেই কম হবে না। ৫৭ বছর বয়সে এসে এইরকম ছবি করতে পারাটা আসলেই চ্যালেঞ্জিং। বয়স যেন তার বাড়ছেই না। একের পর এক হিট ছবি করেই চলছে। অন্যান্য ইয়াং অভিনেতাদের ছবি একদিকে যেমন হিট ই হচ্ছে না অন্যদিকে শাহরুখ খানের ছবির ট্রেইলার এইবলিউডের শুরু থেকেই তিনি আমাদেরকে অনেক সুন্দর সুন্দর মুভি উপহার দিচ্ছেন এত প্রতিযোগিতা থাকার পরও তার মুভির ধারে কাছেও কেউ যেতে পারেনি। ওই যে বললাম না কিং ইজ অলওয়েজ এ কিং। 

Post a Comment

0 Comments